জাফরান এর দাম ২০২৪

জাফরান একটি ফুল। এটি মূলত জাফরান ক্রোকাস নামে পরিচিত। এ জাফরান দিয়ে উন্নত মানের মসলা তৈরি করা হয়। এবং কি আরো অন্যান্য জিনিস জাফরান দিয়ে উৎপাদন করেন। অন্যান্য মসলার থেকে সবচেয়ে জাফরান হলো দামী মসলা। এটি বাংলাদেশে উৎপাদন করা সম্ভব না বলে সব সময়ে বিদেশ থেকে আমদানি করা হয়। প্রথম গ্রিসে এবং সবচেয়ে বেশি উৎপাদন হয় হলো স্পেনে। এবং এই জাফরান এর তেল পাওয়া যায় এই তেল মাথায় দিলে চুল অনেক শুষ্ক এবং চুল পড়া কমে যায়।

বর্তমান বাংলাদেশ আগের তুলনায় জাফরানের চাহিদা প্রতিনিয়ত বৃদ্ধি হচ্ছে। অনেকে এখন বাজারে জাফরান খুঁজে থাকেন। কিন্তু জাফরানের বর্তমান মূল্য জানে না। আপনি জাফরানের মূল্য শুনলে একটু অবাক হয়ে যাবেন। এটি ওজনে একদম হালকা হয়ে থাকে। এবং বিদেশ থেকে আমদানি করার কারণে দাম অনেক খরচ বেশি হয়ে যায়। বাংলাদেশে জাফরান এর দাম কত এই তথ্য জানতে চাইলে আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ুন।

জাফরান এর দাম

এই জাফরান মূলত ঔষধ এবং দামি মসলা এবং অন্যান্য তৈরির কাজে ব্যবহার করা হয়। বিশেষ করে এটি রান্নার সুস্বাদু এবং ভালো কালার হওয়ার জন্য এ জাফরানের মসলা ব্যবহার করায়। এবং বিভিন্ন রোগ প্রতিরোধ এর জন্য জাফরানি ওষুধ বানানো হয়। জাফরান এর ওষুধ শরীরের জন্য অনেক কার্যকারী হয়ে থাকে। এবং এই জাফরান দিয়ে উন্নত মানের রং তৈরি করা হয়ে থাকে। আপনি যদি বর্তমান বাংলাদেশ থেকে অরজিনাল জাফরান কিনতে চান তাহলে দাম পড়বে প্রতি কেজি ৩ লক্ষ টাকা থেকে ৫ লক্ষ টাকা।

১ গ্রাম জাফরান এর দাম

এটি মূলত ফুলের উপরে লম্বা লাল পরা কান্ড থাকে। এবং ওজন একেবারেই হালকা। মসলা তৈরি করার জন্য এই উপরের কান্ড শুধু নেওয়া হয়। এবং কি অন্যান্য যে কোন ঔষধি তৈরি করার জন্য এ  লাল কালার পরাগ কান্ড দিয়েই তৈরি করেন। অনেকে দাম বেশি হওয়ার কারণে এক গ্রাম জাফরান দিয়ে বিভিন্ন জিনিস তৈরি করে থাকেন।

অল্প কোন কাজের জন্য ১ গ্রাম জাফরান দিয়ে কাজ করতে পারবেন। অনেকেই ওষুধ তৈরি করার জন্য ১ গ্রাম জাফরান কিনে থাকেন। এখন বাজারে  ডুবলিকেট জাফরান পাওয়া যায়। আপনি যদি ডুপ্লিকেট জাফরান কেনেন তাহলে এক গ্রাম ২০০ টাকা থেকে ২৫০ টাকার মধ্যে কিনতে পারবেন। এবং অরজিনাল ১ গ্রাম জাফরান কিনতে খরচ পড়বে ৩০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা।

১ কেজি জাফরান এর দাম বাংলাদেশে

অন্যান্য দেশের তুলনায় প্রতিনিয়ত বাংলাদেশে জাফরানের ব্যবহার বেড়েই চলেছে। অনেকেই রান্নার কাজের জন্য জাফরানের মসলা কিনে থাকেন। এটি মূলত সবচেয়ে দামি মসলা। কাচ্চি বিরানী, মিষ্টি এবং অন্যান্য জিনিস তৈরি করতে চাইলে জাফরানের মসলা ব্যবহার করে থাকেন। আবার অনেকই এই জাফরানের রং ব্যবহার করে বিভিন্ন ঔষধি জিনিস তৈরি করে থাকেন।

বাংলাদেশের উৎপাদন না হওয়ার কারণে অনেক বেশি টাকা দিয়ে কিনতে হয়। জাফরান মূলত প্রথম গ্রিসে উৎপাদন শুরু হয়েছিল। এরপর থেকে স্পেনসহ আর দুই তিনটি দেশে জাফরান উৎপাদন করেন। আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে ১ কেজি ভালো মানের জাপান কিনতে চান তাহলে সর্বোচ্চ ৩ লক্ষ ৫০ হাজার থেকে ৫ লক্ষ টাকা লাগবে।

জাফরান এর উপকারিতা

আপনি যদি এ জাফরান ঔষধ অথবা তেল ব্যবহার করেন তাহলে অনেক উপকার পাবেন। অনেকেই জাফরান শরীরের বিভিন্ন উপকারের জন্য খেয়ে থাকেন। এটি মূলত রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। আপনার যে শরীরের যেকোনো রোগ জাফরান খেলে ভালো হতে পারে। জাফরান খেলে শরীরে অনেকগুলো উপকার পাওয়া যায়। দেখে নিন কি কি উপকার হয়।

  1. শরীরের অতিরিক্ত জ্বর কমাতে সাহায্য করে।
  2. হজম শক্তির সমস্যা এবং পেটের মধ্যে যেকোনো রোগ সমসসা সমাধান করে করে।
  3. স্মৃতিশক্তি বাড়ায়।
  4. শরীরের হতাশা দূর করে।
  5. শরীরের যেকোনো ব্যথা দূর করে।
  6. সামান্য একটি জাফরান দাঁতের মাড়িতে ব্যবহার করলে দাঁতের সমস্যা দূর হয়।
  7. দেহের কোলেস্টেরল নিয়ন্ত্রণ রাখতে সহায়তা করে।
  8. জাফরান আমাদের আমাদের দেহে ক্ষতিগ্রস্ত কোষ এবং নতুন কোষ গজাতে সাহায্য করে।
  9. জাফরান অতিরিক্ত রক্তচাপ এবং হৃদপিন্ডের সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।
  10. জাফরান ক্যান্সার রোগ এবং মুত্রনালী রোগ, কিডনির সমস্যা দূর করে।
  11. ভালো ঘুমের জন্য জাফরান অনেক উপযোগী।
  12. শরীরের যে কোন ঠান্ডা জনিত সমস্যা দূর করে।

জাফরান খাওয়ার নিয়ম

আপনি যদি জাফরান সঠিক নিয়ম অনুযায়ী সেবন করেন, তাহলে অবশ্যই উপকার পাবেন। অনেকেই রয়েছেন কিভাবে জাফরান খেতে হয় এই তথ্য জানেন না। ভিন্ন ভিন্ন রোগের অনুযায়ী জাফরান খাওয়ার নিয়ম আলাদা হয়ে থাকে। আপনার যদি শরীরের উপকারের জন্য খেতে চান তাহলে অবশ্যই অরজিনাল জাফরান খেতে হবে। 

প্রথমে আপনি এক কাপ খাঁটি গরুর দুধের সাথে এক চিমটি জাফরান মিশিয়ে আসতো কিসমিস অথবা একটা চামচ কিসমিস বাটা এবং খাঁটি মধুর সাথে মিশিয়ে ভালোভাবে ফুটিয়ে নিতে হবে। ২-৩ মিনিট ফুটানোর করার পর দুধটা হালকা ঠান্ডা করতে হবে। এরপর কুসুম গরম দুধ এবং আরো এক চামচ মধু মিশিয়ে প্রতিদিন খেতে হবে তাহলে আপনার শরীরের সমস্যাগুলো দূর হবে। এর মধ্যে কখনো গুড়া দুধ দেওয়া যাবে না। অবশ্যই খাঁটি গরুর দুধ দিতে হবে।

শেষ কথা

আপনারা যারা বিভিন্ন জিনিস রান্না করার জন্য অথবা ওষুধ তৈরির জন্য জাফরান কিনতে চাচ্ছেন। কিন্তু বর্তমান বাংলাদেশে জাফরানের দাম কত এই তথ্য জানেন না। ইতিমধ্যেই আমরা জাফরান সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য আলোচনা করেছি। আশা করি আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়েছেন এবং জাফরান এর দাম কত এবং কিভাবে খেলে উপকার হবে তথ্যগুলো জানতে পেরেছেন। ধন্যবাদ

Ashraful Islam
Ashraful Islam
Articles: 254

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *