গার্মেন্টস চাকরি বেতন 2024

বাংলাদেশে বর্তমান গার্মেন্টস সেক্টরের শ্রমিক অনেক বেশি। কারণ বিভিন্ন কোম্পানি এবং সরকারি চাকরি না থাকায় সবাই এখন গার্মেন্টসে চাকরি করে থাকে। আগের তুলনায় বর্তমান গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন অনেক বৃদ্ধি হয়েছে। কিছুদিন আগে সাত শ্রমিকরা বিভিন্ন জিনিসের দাম বাড়ার কারণে বেতন নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে সবাই আন্দোলন শুরু করেছিল। এরপর থেকে প্রত্যেকেরই নতুন বেতন নির্ধারণ করা হয়েছে।

অনেক শিক্ষিত বেকার যুবকরা এখন গার্মেন্টসের চাকরির পিছনে ছুটছে। এবং অনেকেই সাধারণ লোকেরাও সবাই সরকারের পোশাক তৈরির কাজে গার্মেন্টসে চাকরি করে থাকে। নতুন করে চাকরি নেওয়ার আগে সবাই বেতন সম্পর্কে জানার চেষ্টা করে। গার্মেন্টস এর বেতনের কয়েকটি গ্রেড রয়েছে। গ্রেড অনুযায়ী বেতন কমবেশি হয়। বিস্তারিত গার্মেন্টস চাকরি বেতন কত জানতে এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে থাকুন।

গার্মেন্টস চাকরি বেতন

বর্তমানে বাংলাদেশে প্রায় ৫৮% লোক এর বেশি শ্রমিক গার্মেন্টসে চাকরি করে। তারা বিভিন্ন সেক্টরে কাজ করে থাকে। গার্মেন্টস এর ওয়ার্কার এবং অফিসারদের আলাদাভাবে গ্রেড অনুযায়ী বেতন নির্ধারণ করা হয়। চারটি গ্রেডে বেতন দেওয়া হয়। সর্বশেষ গার্মেন্টসের বেতনের আপডেট অনুযায়ী  শ্রমিকদের ১২ হাজার ৫০০ টাকা থেকে শুরু করে ১৫ হাজার ৩৫ টাকা পর্যন্ত বেতনের ধারিত রয়েছে। হেল্পার থেকে অপারেটর পর্যন্ত এই টাকায় অভিজ্ঞতা অনুযায়ী বেতন তুলতে পারবেন। এবং কাজের অভিজ্ঞতা হয়ে গেলে ধীরে ধীরে আরো বেতন বৃদ্ধি হতে থাকবে।

গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন গেজেট ২০২৪

গত বছরের তুলনায় এই বছর প্রত্যেকটা শ্রমিকের বেতনের গেজেট অনেক বৃদ্ধি হয়েছে। সরকারি ভাবে শ্রমিকদের আন্দোলন মেনে সরকার নতুন গেজেটে বেতন নির্ধারণ করা হয়েছে। এখন মূলত বাংলাদেশ গার্মেন্ট সেক্টরে সব থেকে কাজ বেশি করা হয়। কারণ বিভিন্ন পোশাক বাংলাদেশের চাহিদা শেষ করে তারা বিদেশে রপ্তানি করে থাকে। চাহিদা অনুযায়ী প্রচুর সংখ্যক লোক প্রতিনিয়ত গার্মেন্টসে নিয়োগ হচ্ছে। এবং নতুন করে আরো অনেক গার্মেন্টস তৈরি হচ্ছে। আপনাদের সুবিধার্থে এবং যারা নতুন চাকরি নিবেন তাদের জন্য শ্রমিকদের বেতন গেজেট উল্লেখ করেছি।

  1. গ্রেড ১ গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন ১৫,০৩৫ টাকা।
  2. গ্রেড ২ গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন ১৪,১৭৩ টাকা ।
  3. গ্রেড ৩ গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন ১৩,৫৫০ টাকা ।
  4. গ্রেড ৪ গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন ১২,৫০০ টাকা ।

গার্মেন্টস শ্রমিকদের ন্যূনতম বেতন

একটি গার্মেন্টস এর শ্রমিকদের সরকারি ভাবে ন্যূনতম বেতন নির্ধারণ করে দিয়েছে। কিছুদিন আগে শ্রমিকদের আন্দোলনের মাধ্যমে সরকার আগের তুলনায় প্রায়  ৬৩ শতাংশ বেতন বৃদ্ধি করে দিয়েছে। বিশেষ করে হেলপারদের বেতন বৃদ্ধি হওয়ার কারণে অনেক নতুন করে হেলপারের চাকরি নিতে চাচ্ছে।

নতুন অবস্থায় যদি কেউ চাকরি নাই সে এই নূন্যতম বেতন উত্তোলন করতে পারবে। প্রত্যেকেই নতুন অবস্থায় গার্মেন্টসে চাকরি নেওয়ার আগে অনলাইনের মাধ্যমে সর্বনিম্ন বেতন জানার চেষ্টা করে। অর্থাৎ আপনি হেলপার হিসেবে নতুন এ গার্মেন্টসে চাকরি নিলে ন্যূনতম ১২৫০০ টাকা বেতন উত্তোলন করতে পারবেন।

গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি

কয়েক মাস আগে চারটি গ্রেড পদ্ধতিতে বেতন বৃদ্ধি হয়েছে। বর্তমানে বিশ্ব বাজার অনুযায়ী নৃত্য প্রয়োজনীয় সব জিনিসের দাম আগের তুলনায় দ্বিগুণ বৃদ্ধি হয়েছে। ঘর ভাড়া সহ সবগুলো জিনিস ক্রয় করতে অনেক বেশি টাকা খরচ হয়ে যায়। এসব দিক বিবেচনা করে সকল গার্মেন্টস শ্রমিকরা একসঙ্গে আন্দোলন শুরু করেছিল। এরপর থেকে বাংলাদেশ সরকার শ্রমিকদের আন্দোলন মেনে বেতন বৃদ্ধির ঘোষণা করেছে।

২০০৬ এর ১৪১ ধারা মোতাবেক তাদের বস্ত্র এবং মৌলিক চাহিদা অনুযায়ী শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি করে দিয়েছে। আগে ৮৩৯০ টাকা সর্বনিম্ন বেতন থেকে এখন গার্মেন্টসে বর্তমান সর্বনিম্ন বেতন নির্ধারিত রয়েছে ১২,৫০০ টাকা। এবং সর্বোচ্চ ১ম গ্রেডে ১৪,৫০০ টাকা বেতন থেকে বৃদ্ধি করে নতুন শ্রমিকদের বেতন করা হয়েছে ১৫,০৩৫ টাকা।  এভাবে সবগুলো গ্রেডে গার্মেন্টস শ্রমিকদের বেতন বৃদ্ধি হয়েছে।

শেষ কথা

আপনারা যারা গার্মেন্টস শ্রমিক রয়েছেন। এবং নতুন করে অনেকেই গার্মেন্টসে চাকরি নেওয়ার আগে বেতন সম্পর্কে জানার চেষ্টা করেন। ইতিমধ্যেই আমরা এই পোস্টের মাধ্যমে সর্বশেষ বিভিন্ন গ্রেড এর গার্মেন্টসের শ্রমিকদের বেতন উল্লেখ করেছি। আশা করি আপনি আমাদের সম্পূর্ণ পোস্টটি পড়ে গার্মেন্টস চাকরি বেতন কত জানতে পেরেছেন। এরকম আরো প্রয়োজনীয় তথ্যগুলো জানতে এই পোষ্টটি আশেপাশের বন্ধুদের সাথে শেয়ার করে দিন। ধন্যবাদ

Leave a Comment