ঢাকা টু থাইল্যান্ড বিমান ভাড়া ২০২৪

বিভিন্ন প্রয়োজনে এবং কাজের উদ্দেশ্যে বাংলাদেশ থেকে বহু মানুষ থাইল্যান্ডে পৌঁছে থাকেন। তবে অবশ্যই থাইল্যান্ডে পৌঁছাতে হলে আপনাকে বিমানে করে পৌঁছাতে হবে। খুব দ্রুত আপনি বিমানে করে বাংলাদেশ থেকে থাইল্যান্ডে পৌঁছাতে পারবেন। যেহেতু বিভিন্ন এয়ারলাইন্স বাংলাদেশ থেকে সরাসরি থাইল্যান্ডে পৌঁছে থাকেন তাই বিমান ভাড়া সম্পর্কে সঠিক ধারণা রাখা উচিত।

থাইল্যান্ড হলো দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ার একটি দেশ। যার আয়তন ৫,১৩,১২০ বর্গকিলোমিটার, এবং জনসংখ্যা ৭ কোটির উপরে। তাই আপনি যদি কোন কাজের উদ্দেশ্যে অথবা ভ্রমণের উদ্দেশ্যে থাইল্যান্ডে যেতে চান তাহলে অবশ্যই ঢাকা টু থাইল্যান্ড বিমান ভাড়া কত টাকা তা জেনে নিন।

ঢাকা টু থাইল্যান্ড বিমান ভাড়া

বাংলাদেশের ঢাকার বিমানবন্দর থেকে আর থাইল্যান্ডে যাওয়ার জন্য আপনি বিভিন্ন কোম্পানির এবং বিভিন্ন ক্যাটাগরির বিমান পেয়ে যাবেন। তবে এক্ষেত্রে আপনি যে কোন বিমান এর টিকেট ক্রয় করে নির্দিষ্ট সময়সূচি অনুযায়ী ঢাকা থেকে থাইল্যান্ড পৌঁছাতে পারেন। আবার বিমান ভাড়া কত টাকা হবে অনেকটা টিকিট বুকিং করার সময় অনুযায়ীও নির্ধারণ করা হয়ে থাকে।

যদি কম টাকায় আপনি বাংলাদেশ থেকে থাইল্যান্ডের যাওয়ার উদ্দেশ্যে একটি বিমানের টিকেট ক্রয় করতে চান। তাহলে সর্বনিম্ন দুই মাস পূর্বে থাইল্যান্ডের যাওয়ার বিমানের টিকিট ক্রয় করুন। এতে করে অনেক কম টাকায় একটি বিমানের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। তবে দেখি এবং বিদেশী বিমানগুলোর তালিকা মধ্যে আজকের আলোচনায় বেশি বিমানের টিকিটের মূল্য উল্লেখ করা হয়েছে।

বাংলাদেশ থেকে থাইল্যান্ড যেতে কত টাকা লাগে

যদি বাংলাদেশ থেকে আপনি থাইল্যান্ডে যেতে চান এক্ষেত্রে আপনাকে বিভিন্ন প্রক্রিয়ার মধ্যে যেতে হবে। যেমন আপনাকে সর্বপ্রথম থাইল্যান্ডের একটি ভিসা তৈরি করতে হবে। এক্ষেত্রে ভিসার জন্য ভিসা ফি প্রদান করতে হয়। এবং ভিসার প্রক্রিয়া সম্পন্ন হয়ে গেলে অবশ্যই একটি বিমানের টিকিট ক্রয় করতে হবে। এবং আরো প্রয়োজনীয় বিভিন্ন কাগজপত্রটির ব্যাপার স্যাপার রয়েছে।

যার পরিপ্রেক্ষিতে ভিসা সহ এয়ারলাইন্সের মূল্য একত্র করলে বাংলাদেশ থেকে থাইল্যান্ড পৌঁছাতে এই দুই থেকে আড়াই লক্ষ টাকা হলেই সম্ভব। তবে আপনি যদি শুধুমাত্র বিমান এয়ারলাইন্সের ভাড়া জানতে চান তাহলে সর্বনিম্ন ২০ থেকে ২৫ হাজার টাকা। এবং সর্বোচ্চ প্রায় ৩৫ হাজার থেকে লক্ষ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। তবে এই বিমানের টিকিটের মূল্য সম্পন্ন নির্ভর করছে আপনার টিকিটের ক্যাটাগরির উপর।

ঢাকা টু থাইল্যান্ড বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইন্স বিমান ভাড়া কত

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স হচ্ছে বাংলাদেশের একমাত্র সরকারি বিমান সংস্থা। এ বিমান প্রধানত ঢাকায় অবস্থিত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কার্যক্রম পরিচালনা করে। এছাড়া চট্টগ্রামের বিমানবন্দর শাহ আমানত থেকেও প্রতিনিয়ত বিভিন্ন আন্তর্জাতিক রুটে চলাচল করে। এই বিমানের সাথে বিশ্বের প্রায় ৭০ টি দেশের সাথে বিমানের বিমান সেবায় চুক্তি রয়েছে।

এই বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর প্রতিষ্ঠাকাল ১৯৭২ সাল। তবে বর্তমানে বিভিন্ন যাত্রার জন্য বিমান অনেক বেশি পরিচিত এবং জনপ্রিয়। তবে আপনি যদি বাংলাদেশ থেকে শুধুমাত্র থাইল্যান্ডে এই এয়ারলাইন্স ব্যবহার করে পৌঁছাতে চান। তাহলে সর্বনিম্ন টিকিটের মূল্য হবে ৩০ হাজার টাকা। আপনার যাত্রার ঠিক ৩০ দিন পূর্বে যদি এই এয়ারলাইন্সের টিকিট বুকিং করে থাকেন। তাহলে এই বিমানের টিকিট মূল্য দাঁড়াবে ৩৫ হাজার ৭৪ টাকা।

ঢাকা টু থাইল্যান্ড ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স বিমান ভাড়া কত

এই ইউ এস বাংলা এয়ারলাইন্স হচ্ছে বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ একটি বেসরকারি বিমান সংস্থা। বাংলাদেশে অবস্থিত এ বিমান সংস্থাটি ২০১৪ সালের ১৭ জুলাই এর কার্যক্রম শুরু করে। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন রুটে এই ইউ এস বাংলা বাংলাদেশ থেকে প্রতিনিয়ত নির্দিষ্ট সময় অনুযায়ী চলাচল করে থাকে। তবে অন্যান্য আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্সের থেকে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্সের টিকিটের মূল্য অনেক কম।

তবে আকাশ যাত্রাপথে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স অনেক জনপ্রিয় এবং পরিচিত। ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অনবরত চলাচল করে থাকে। তবে আপনি যদি বাংলাদেশের ঢাকা হযরত শাহজালাল বিমানবন্দর থেকে থাইল্যান্ডের যাত্রাপথে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স ব্যবহার করেন।

তাহলে যাত্রার এক মাস পূর্বে টিকিট বুক মূল্য ২৯ হাজার ৭০৯ টাকা। ঠিক আপনার যাত্রা 30 দিন পূর্বে যদি ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্স এর টিকিট ক্রয় করে থাকেন তাহলে টিকিট মূল্য হবে ৩২ হাজার ৭৭২ টাকা। যেখানে থাইল্যান্ডে যেতে অন্যান্য এয়ারলাইন্সের মূল্য প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ হাজার টাকার প্রতিটি টিকিট মূল্য।

শেষ কথা

বর্তমানে যারা বাংলাদেশ থেকে থাইল্যান্ডের যেতে যাচ্ছেন তাদের জন্য অবশ্যই আজকের এই পোস্ট অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ।ঢাকা টু থাইল্যান্ড বিমান ভাড়া সম্পর্কে বিস্তারিত আজকের আলোচনা ইতিমধ্য উল্লেখ করা হয়েছে। আশা করতেছি এ পোস্ট থেকে আপনারা অনেক বেশি উপকৃত হয়েছেন।এই পোস্ট থেকে যদি উপকৃত হয়ে থাকেন তাহলে অবশ্যই অন্যদের মাঝে শেয়ার করে দিন। ধন্যবাদ

Ashraful Islam
Ashraful Islam
Articles: 253

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *